You cannot copy content of this page. This is the right with takmaa only

এই প্রথম ভারতের ইতিহাসে কোন সাংসদ তাঁর ব্যক্তিগত গাড়ি করোনা মোকাবিলার জন্য প্রসূতি মায়েদের জন্য তুলে দিলেন হাসপাতালে

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, সোনারপুর, ২৬শে মে ২০২০ : ভারতের ইতিহাসে বোধহয় এই প্রথম কোন সাংসদ তাঁর নিজের ব্যবহারের গাড়ি কোন শুভ উদ্দেশ্যে দান করলেন। সাম্প্রতিক যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ ও অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী তাঁর ব্যক্তিগত এসি গাড়ি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে হাসপাতালকে প্রদান করলেন করোনা ভাইরাস মোকাবিলার জন্য।।

সদ্যোজাত শিশু এবং তার মা যাতে এই ভাইরাস থেকে নিরাপদে থাকতে পারেন,তাই সম্পূর্ণ জীবাণু মুক্ত করা গাড়িটি সোনারপুরে সুভাসগ্রাম গ্রামীণ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেন।মিমি চক্রবর্তী তাঁর কাজের মাধ্যমে বারবার প্রমান করেছেন যে, মমতা ব্যানার্জি যোগ্য প্রার্থী বাছাই করেছেন এবং যাদবপুরের মানুষ যোগ্য পার্থীকেই নির্বাচিত করেছেন।এর আগেও সাংসদ মিমি চক্রবর্তী প্রসূতি মা ও শিশুদের জন্য একটি শীততাপ নিয়ন্ত্রিত অ্যাম্বুলেন্স প্রদান করেন ভাঙড় বিধানসভায়।

করোনার কারণে সাংসদ মিমি চক্রবর্তী নিজের ফ্ল্যাটে বিশ্রামে থাকলেও তাঁর লোকসভা কেন্দ্রে কিন্তু কাজ থেমে থাকে নি। লকডাউন চলাকালীন তাঁর নির্দেশে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে বিভিন্ন এলাকায় দুঃস্থ মানুষদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হয়েছে, ইফতারের জন্য খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে, এইডস শিশুদের জন্য খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে, লোকনাথ মন্দিরে নিয়মিত ভাবে রান্না করা খাবার পরিবেশন করা হয়েছে। মিমি চক্রবর্তী ভারতবর্ষের বাকি সাংসদদের কাছে এবার একটা দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করলেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বুঝিয়ে দিলেন শুধু দেশের মানুষের জন্য সাংসদ হিসাবে মাসিক সান্মানিক নয় নিজস্ব গাড়িও তিনি ছেড়ে দিতে পারেন মানুষের উপকারে।যাদবপুরের লোকসভা কেন্দ্রের মানুষ আজ গর্বিত সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *