You cannot copy content of this page. This is the right with takmaa only

ক্রসড অ্যারোজ থেকে প্রকাশিত হল শোমা চ্যাটার্জি ও অমিতাভ নাগের সিনেমা সংক্রান্ত দুটি বই

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ৭ই ফেব্রুয়ারি ২০২০ : সাম্প্রতিক নন্দন হলে ক্রসড অ্যারোজ পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত হল জোড়া বই। শোমা এ চ্যাটার্জি রচিত “বলিউড সিনেমা কালেইডোস্কোপ” এবং অমিতাভ নাগ রচিত “১৬ ফ্রেমস”। দুটি বই সিনেমা জগতে দাগ কেটে রাখবে। দুটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা প্রসেঞ্জিত চ্যাটার্জি, নির্দেশক রঞ্জন ঘোষ ও সুদেষ্ণা রায়।অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লেখক শোমা এ চ্যাটার্জি ও অমিতাভ নাগ।

শোমা এ চ্যাটার্জি সাংবাদিক মহলে প্রবীণ সাংবাদিকদের মধ্যে অন্যতম। দীর্ঘদিন তিনি অভিনয় জগতের সমালোচক বটে। শোমা এ চ্যাটার্জিকে নিয়ে সব থেকে বড় কথা তিনি দীর্ঘদিনের সিনেমা সমালোচক এবং তিনি কাউকে তোয়াজ কোনদিনও করেন নি। এই বই ছিল তাঁর ২৫ তম, তিনি ১৯৯১ সালে বেস্ট ফিল্ম ক্রিটিক জাতীয় পুরস্কার লাভ করেন এবং ২০০২ সালে “বেস্ট বুক অন সিনেমা” পুরস্কার লাভ করেন। তিনি দেশে ও বিদেশে বহু ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে জুরির ভূমিকা পালন করেছেন।

অমিতাভ নাগের লেখা “১৬ ফ্রেমস” বইটি দীর্ঘ ২০ বছরের তাঁর লেখা বিভিন্ন সিনেমার সমালোচনার থেকে বাছাই করা। তিনি দ্য হিন্দু, আউটলুক, নিউজ ১৮, দ্য স্টেটসম্যান, হিমাল ম্যাগাজিন, সিলহাউট ফিল্ম ম্যাগাজিনে স্বাধীনভাবে কাজ করেছেন।

অনুষ্ঠানে অভিনেতা প্রসেঞ্জিত বলেন, শোমাদি দীর্ঘদিন সিনামার উপর কাজ করছেন, তিনি সিনেমার একটা জ্যান্ত ইতিহাস।তাঁর লেখা পড়ে অনেকে অসন্তুষ্ট হয় আবার অনেকে খুশিও হয়। তিনি কাউকে খুশি করার জন্য লেখেন না, আমি দেখি নি, এটাই ভাল। তাঁর লেখা বর্তমান প্রজন্মের কাছে খুব কাজের হবে। যারা নতুন সিনেমা নিয়ে কাজ করার কথা ভাবছে বা যারা সিনেমা বিষয়ে ছাত্রছাত্রী তাদের খুব উপকারে লাগবে।

অনুষ্ঠানে সুদেষ্ণা রায় বলেন, শোমাদি’কে আমি অনেক আগে থেকে চিনতাম, যখন আমি একটা সংবাদমাধ্যমে কাজ করতাম। সেখানে শোমাদি আমাদের লেখা দিতেন। শোমাদি’কে দেখেছি সিনেমা বা অভিনয় নিয়ে সজাসাপটা লিখতে।শোমা’দি-র লেখা পড়ার জন্য অনেকে মুখিয়ে থাকে। প্রচারে সুপ্রীতা সিং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *