You cannot copy content of this page. This is the right with takmaa only

আগামীকাল থেকে ২৭ শে মার্চ পর্যন্ত লকডাউন, ৩১শে মার্চ পর্যন্ত অজরুরী পরিষেবা পরিবহণ বাইরের রাজ্য থেকে আসা বন্ধ

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২২শে মার্চ ২০২০ : ভারতবর্ষে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ২৮১ জন যার মধ্যে এই রাজ্যে মাত্র ৪জন। সারা বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ১১০০০ পেড়িয়ে গেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর স্বাস্থ্য দপ্তর জরুরী পরিস্থিতিতে পদক্ষেপ নিয়েছে। সকলকে সুস্থ্য রাখতে মুখ্যমন্ত্রী কিছু নির্দেশ দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বলা হয়েছে বাইরের রাজ্য থেকে কোন অজরুরী দ্রব্য পরিবহণ রাজ্যে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে।

রাজ্যের তরফে করোনা ভাইরাসের জেরে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কলকাতা সহ বাংলার সমস্ত পুরসভা এলাকায়। সূত্রের খবর, সোমবার বিকেল ৪টে থেকে এই লকডাউন শুরু হবে। চলবে আগামী এক সপ্তাহ। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্মতি দিলেই লকডাউনে চলে যাবে গোটা বাংলা।

কলকাতার পাশাপাশি দেশের ৭৫টি গুরুত্বপূর্ণ শহরে হতে পারে লকডাউন। এই বিষয়ে সকল রাজ্য প্রশাসনকে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র। এবার শুধু রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সম্মতিদানের অপেক্ষা। কলকাতা সহ ২৩টা জেলায় লকডাউন করা হয়েছে। কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর (গোটা জেলা), নদিয়া (গোটা জেলা), মালদা (গোটা জেলা), হাওড়া (গোটা জেলা) হুগলী (গোটা জেলা) মুর্শিদাবাদ (গোটা জেলা), দঃ ২৪ পরগণায় ডায়মন্ড হারবার, ক্যানিং, সোনারপুর, ভাঙড়, বজবজ ও বারুইপুর এই লকডাউনের আওতায় রয়েছে। গোটা কলকাতা, গোটা উত্তর ২৪ পরগণা (নিউ টাউন ও রাজারহাট) লকডাউনের আওতায়। কাল রাজ্যে সব সরকারি ও বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে।বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে জরুরী পরিষেবার সাথে যুক্ত এমন দ্রব্য এই লকডাউনের আওতার বাইরে। দুধ, সংবাদ, স্বাস্থ্য পরিষেবা, পুলিশ, সাফাই কর্মী এর আওতার বাইরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *