You cannot copy content of this page. This is the right with takmaa only

খুশীর উদ্যোগে “আমার বাংলা আবার সবুজ হোক” প্রকল্পের শুভসূচনা, বাংলায় একলক্ষ চারাগাছ রোপন

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ৫ই জুন ২০২০ : বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষ্যে কলকাতার অবাণিজ্যিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘খুশী- আ হেল্পিং হ্যান্ড’ বাংলার সবুজায়নে নতুন কর্মসূচীর শুভসূচনা করল। তাদের নবতম উদ্যোগ্ “আমার বাংলা সবুজ হোক” কর্মসূচী সার্থক করতে একলক্ষ চারাগাছ রোপন করা হল। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জেলার পাঁচটি শহরে সমাজকর্মী, স্বেচ্ছাসেবক, স্কুলপড়ুয়া, শিক্ষক, অভিভাবক, বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গও ও সমাজসেবী সংগঠনকে একত্রিত করে আগামী ছয়মাসে সমগ্র পশিমবঙ্গ জুড়ে সবুজায়নের জন্য প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা গৃহীত হয়েছে। প্রায় হাজারটি চারাগাছ ও মাঝারি গাছ সদস্যদের হাতে এইদিন তুলে দেওয়া হয়।

‘খুশী’র কর্ণধার অমতাভ সামন্ত জানান, “খুশীর তত্ত্বাবধানে কলকাতা, শান্তিনিকেতন ও সোনারপুর সহ আরও বেশ কয়েকটি স্থানে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষ্যে বৃক্ষরোপন করা হয়েছে। আমফান বিধ্বস্ত পশ্চিমবাংলা ও ওড়িশায় যে বিপুল সংখ্যক গাছ ছিন্নমূল হয়েছে তার ফলে আগামীদিনে পরিবশে যে প্রভাব পড়তে চলেছে তা রুখতে এইদুই রাজ্যে বৃক্ষরোপন অনিবার্য। ঝড়ের কারণে যে পরিমাণ সবুজের বিনাশ হয়েছে তার ফলে অদূর ভবিষ্যতে পরিবেশ দূষণ মাত্রাতিরিক্ত বৃদ্ধি পেতে পারে এবং শ্বাসযোগ্য বায়ূর অভাব হতে পারে”।

তিনি আরও জানান যে, “প্রকৃতি মায়ের ক্ষত নিরাময় করতে তাঁদের এই সামান্য উদ্যোগ কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী জেলায় প্রসারিত করা হচ্ছে। আমরা চেষ্টা করছি তরুণ শিক্ষার্থীদের আমাদের উদ্যোগে সামিল করতে, যাতে আগামী প্রজন্মের মধ্যেও পরিবেশ রক্ষার সচেতনতা বৃদ্ধি পায়। বৃক্ষরোপন আমাদের প্রথম পদক্ষেপ। আগামী দিনে সেই বৃক্ষের রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচর্যার বিষয়েও আমরা যত্নবান হব। “আমার বাংলা আবার সবুজ হোক” প্রকল্পকে সফল করতে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে আপামর জনগণকে একত্রিত করার বিষয়ে ‘খুশী’- আ হেল্পিং হ্যান্ড” দৃঢ়প্রতিজ্ঞ”।

পরিবেশ রক্ষা ও সবুজায়ন ছাড়াও ‘খুশী’র উদ্যোগে গত দুইমাসে ৫০০০ টি দুঃস্থদরিদ্র পরিবারকে খাদ্য ও জীবনধারণের প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করা হয়েছে।প্রচারে মিডিয়া শাইন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *